Wednesday , March 28 2018
Home / স্বাস্থ্য / প্রতিদিন হলুদ-পানি পানের স্বাস্থ্য উপকারিতা

প্রতিদিন হলুদ-পানি পানের স্বাস্থ্য উপকারিতা

আমাদের দেহে বিভিন্নভাবে বিষাক্ত পর্দাথ প্রবেশ করে থাকে। যেমন- বায়ুর মাধ্যমে, খাবারের মাধ্যমে অথবা পানির মাধ্যমে নানাভাবে আমাদের দেহ প্রতিনিয়ত দূষিত হচ্ছে। যার ফলে, জ্বর, ঠান্ডা কাশি এবং টক্সিক পর্দাথ শরীরে প্রবেশ শরীরকে অসুস্থ করে দেয়। আর এই জ্বর, ঠান্ডা কাশি দূর করতে হলুদ-পানি বেশ কার্যকর। ঠিক তেমন হলুদ এবং গরম পানির মিশ্রণ দেহ থেকে টক্সিক পর্দাথ বের করে দেহকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

যা যা লাগবে:

২০০ মিলিলিটার কুসুম গরম পানি

১ টেবিল চামচ মধু

১/২ টা লেবুর রস

১/২-১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো

যেভাবে তৈরি করবেন:

এক কাপ লেবুর রসের সাথে কুসুম গরম পানি এবং হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এর সাথে মধু যোগ করুন। সবগুলো উপাদান ভাল করে মেশান। আপনি চাইলে এতে দারুচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে পারেন। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে এটি পান করুন।

উপকারিতা:

১। ডায়াবেটিস প্রতিরোধ-

এক গবেষণায় দেখা গেছে হলুদ মিশ্রিত কুসুম গরম পানি ২ টাইপ ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে। এটি ডায়াবেটিস রোগীদের হরমোনাল সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

২। বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে-

হলুদ পানি দেহের রক্ত চলাচল সচল রাখে এবং স্বাস্থ্যকর নতুন কোষ তৈরি করে। যা ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে ত্বককে রাখে চির নতুন।

৩। ক্যান্সার প্রতিরোধক-

গরম পানি এবং হলুদের মিশ্রণ দেহে ক্যান্সারের জীবাণু তৈরিতে বাঁধা প্রদান করে। হলুদে অ্যালকালিয নামক উপাদান রয়েছে যা কোষের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি রোধ করে।

৪। ওজন হ্রাস করতে-

কিডনি এবং লিভারের বিষাক্ত পর্দাথ দূর করতে হলুদ পানি বেশ কার্যকর। এটি শরীরে মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে। এর সাথে হজমশক্তি বাড়িয়ে দেয়।

৫। পটাসিয়ামের চাহিদা পূরণ-

এটি স্ট্রেস দূর করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে সারাদিনে কাজে শক্তি প্রদান করে। লেবু প্রাকৃতিক মূত্রবর্ধক, যা মূত্রনালীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

৬। বাতের ব্যথা উপশম করতে-

হলুদ পানি জয়েন্ট পেইন, বাতের ব্যথা দূর করে থাকে। এর অ্যান্টি- ইনফ্লামেনটরি উপাদান ব্যথা উপশম করে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *