Friday , January 19 2018
Home / রুপচর্চা / ত্বকের পাঁচটি সমস্যার সমাধানে দারুণ দারুচিনি

ত্বকের পাঁচটি সমস্যার সমাধানে দারুণ দারুচিনি

মশলা হিসেবে দারুচিনি খুবই জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত। মিষ্টি স্বাদ ও সুবাসযুক্ত এই উপাদানটি প্রায় সকল খাবারেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে দারুণ এই উপাদানটি ইদানিং সৌন্দর্যচর্চার ক্ষেত্রেও ব্যবহৃত হচ্ছে বিভিন্নভাবে। এর প্রধান কারণ দারুচিনিতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান সমূহ। সৌন্দর্যচর্চা ছাড়াও ওজন কমাতে এবং ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হয়ে থাকে দারুচিনি, দারুচিনি গুঁড়া ও তেল।

ত্বকের পরিচর্যার ক্ষেত্রে বিশেষভাবে উপকারী এই উপাদান দুইটির উপস্থিতি দারুচিনিকে বেশ জনপ্রিয় করে তুলেছে। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে অনেকেই ঝুঁকছেন দারুচিনির দিকে। ত্বকের যত্নে দারুণ এই উপাদানটির ব্যবহার সম্পর্কে জেনে নিন আজকের ফিচারে।  

ত্বকে বয়সের ছাপ কমাবে দারুচিনি

এক একটি বছর পার হবার সাথে সাথে ত্বকে কোলাজেনের মাত্রা হ্রাস পেতে থাকে। যার ফলে ত্বকে দেখা দিতে থাকে বয়সের ছাপ। প্রাকৃতিক উপাদানে ভরপুর দারুচিনি কোলাজেন তৈরির মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে থাকে। যার ফলে মুখের ত্বকের বলিরেখা ও দাগ তৈরি হওয়া কমে যায়। এছাড়া, দারুচিনি রক্তনালিকা প্রশস্ত করতে এবং রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে বলে ত্বক সুস্থ থাকে।

যেভাবে ব্যবহার করতে হবে

দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েলের সাথে ২-৩ ফোঁটা দারুচিনির তেল মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি মুখের ত্বকে ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, চোখে যেন না লাগে। ১০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে। প্রতিদিন একবার এই মিশ্রণ ব্যবহার বলিরেখা দ্রুত কমিয়ে আনে।

ত্বক উজ্জ্বল করবে দারুচিনি

শুধুমাত্র ত্বকের বলিরেখা কমাতেই নয়, ত্বক উজ্জ্বল করতে দারুচিনি দারুণ উপকারী একটি উপাদান। বিশেষ করে, মধুর সাথে দারুচিনি গুঁড়োর মিশ্রণ খুবই উপকারী।

যেভাবে ব্যবহার করতে হবে

আধা চা চামচ মধুর সাথে এক চিমটি পরিমাণ দারুচিনি গুঁড়ো মেশাতে হবে। মিশ্রণটি মুখে ও ঘাড়ে সতর্কতার সাথে মাখিয়ে নিতে হবে। ১০ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এই মিশ্রণটি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে।

ব্রণের সমস্যা কমাবে দারুচিনি

যদি মুখের ত্বকে ঘনঘন ব্রণের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় তবে চিন্তিত হবার কিছু নেই। দারুচিনি ব্রণের সমস্যা কমাতে খুব ভালো কার্যকরি প্রাকৃতিক উপাদান।

যেভাবে ব্যবহার করতে হবে

একটি বাটিতে তিন টেবিল চামচ মধু এবং এক টেবিল চামচ দারুচিনি গুঁড়ো মেশাতে হবে। মিশ্রণটি ত্বকের ব্রণ আক্রান্ত স্থানে ভালোভাবে মাখাতে হবে। ২০ মিনিট সময় পরে কুসুম গরম পানির সাহায্যে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। চাইলে আরও বেশী সময় নিয়ে রেখে দেওয়া যাবে। প্রতি সপ্তাহে একবার এই মিশ্রণ ব্যবহার করলেই যথেষ্ট।

ত্বকের মরা চামড়া দূর করতে দারুচিনি

ত্বকের মরা চামড়া জমে থাকার ফলে অনেক সময় ত্বকের বিভিন্ন স্থানে ছোপ ছোপ কালো দাগের সৃষ্টি হয়। স্বাস্থ্যকর ও কোমল ত্বক পেতে চাইলে নিয়মিত মুখের ত্বকের মরা চামড়া পরিষ্কার করা প্রয়োজন।

যেভাবে ব্যবহার করতে হবে

একটি পাকা কলা থেঁতলে নিয়ে তার সাথে এক চা চামচ পরিমাণ দই মেশাতে হবে। এতে এক চিমটি পরিমাণ দারুচিনি গুঁড়ো এবং এক চা চামচ পরিমাণ লেবুর রস মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণ তৈরি হয়ে গেলে মুখ ও ঘাড়ের ত্বকে মাখিয়ে নিতে হবে। সম্পুর্ণ শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ত্বকে অ্যান্টিস্যাপটিকের কাজ করবে দারুচিনি

এটা কোন কথিত গল্প নয় কিংবা ভুল তথ্য নয়। একেবারেই সঠিক তথ্য। দারুচিনি গুঁড়ো যেকোন কাটাছেঁড়া সারাতে এবং ক্ষতস্থানের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সাহায্য করে থাকে। তবে মনে রাখতে হবে, ক্ষতস্থান বড় হলে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে।

 

Check Also

তাৎক্ষণিকভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে কার্যকরী ফেসপ্যাক

রাতে ঘুম ভালো না হলে কিংবা আগের দিনটি ভালো না কাটলে পরিমিত ঘুম হলেও ত্বক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *