Friday , December 15 2017
Home / বাংলাদেশ / এবার জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস! ভিডিও সহ দেখুন

এবার জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস! ভিডিও সহ দেখুন

মুসা বাপ্পি কর্তৃক আপ করা ভিডিওটি ফেসবুক থেকে দেখুন:

তথ্য গোপন করে প্রতারণার মাধ্যমে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ হওয়া জান্নাতুল নাঈম
এভ্রিলকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কিছুই নেই। কারণ, ইতোমধ্যে তাকে সবাই মোটামুটি চিনে গেছেন।
 
মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের মুকুট হারানো এভ্রিলের বিয়ের খবর বের হওয়ার পরই বিষয়টি টপ অফ দ্যা কান্ট্রিতে পরিণত হয়। যদিও সেটিকে এভ্রিল বিয়ে বলতে নারাজ। তাই বালবিয়ে বলেই তিনি প্রচার করেছেন।
 
এবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবি ঘুরাঘুরি করছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে এক পুরুষের সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় রয়েছেন এক নারী। যিনি ছবিটি পোস্ট করেছেন তিনি বলছেন, এটিই জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল।
 
ছবিটিতে দেখা যায়, একজন নারী একজন পুরুষের পাশে শুয়ে আছেন। এছাড়াও সামাজিক গণমাধ্যমে ঘুরতে থাকা একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে- জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের বাইকের পেছনে চড়ে আছেন একজন ব্যক্তি। বাইকের ব্যক্তি ও বিছানার ব্যক্তিকেও এক করে দেখছেন অনেকেই।
 
এ ছবিটির সম্পর্কে নিশ্চিত হতে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয় এভ্রিলের সঙ্গে। একাধিকবার ফোন ও টেক্সট করার পরও অপর প্রান্ত থেকে সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না এভ্রিলের। পরবর্তীতে কয়েকবার চেষ্টার পর একজন ফোন ধরেন। তিনি নিজেকে এভ্রিলের সহকারী পরিচয় দিয়ে জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের ওই ছবি সম্পর্কে বলেন- ‘ছবিটি জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের নয়’। কিন্তু কথাটি এভ্রিলের মুখ থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন এভ্রিল এখন ব্যস্ত আছেন। এতে আন্দাজ করা যায় যে এভ্রিল সচেতন ভাবে বিষয়টি এরিয়ে যান।
 
 
ওপর দিকে, এই ছবি ও ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে ‘মুসা বাপ্পি’ নামে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারীর মাধ্যমে। তিনি হিউম্যান অ্যাক্টিভিস্ট অ্যাট ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের একজন সদস্য।
 
তিনি সেই ছবি ও ভিডিও আপ করেছেন এবং লিখেছেন- ‘আমার এলাকার ও বাংলাদেশের অনেক পোলাপান হাইস্পিড বাইকার এভ্রিলের পাশে থাকার কথা দিয়েছেন! সুতরাং তাদের জন্য দুঃসংবাদ!……. যাদের এভ্রিলের জন্য মায়া কান্না হয়! তাদের জন্য এই ছবিগুলো। সুতরাং সে আমার কোনো বাঙালি মা-বোনের পথপ্রদর্শক হতে পারে না। ছবিগুলো একটু মিলিয়ে দেখবেন’!
 
এমন আত্মবিশ্বাস দেখে ফেসবুক ইনবক্স মারফত যোগাযোগ করা হয় মুসার সঙ্গে। ফোন নম্বর চাইলে, মুসা মেসেজ সিন করে কোনো রিপ্লাই দেননি। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই জিজ্ঞাসা করা হয়, ওই ছবি এবং ছবিতে থাকা পুরুষটির সম্পর্কে তিনি নিশ্চিত কিনা। কিন্তু, সেই টেক্সট সিনই করেননি মুসা।
 
এর আগে এভ্রিলের বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে প্রথমে এভ্রিল অস্বীকার করেন, এবং তিনি বলেছিলেন ছবিগুলো ফেইক। যদিও পরে কেঁদে কেঁদে তা স্বীকার করে নেন, নিজের বয়স নিয়ে মিথ্যা বলা, বিয়ে এবং বিচ্ছেদের প্রসঙ্গ গোপন করাসহ অসংখ্য মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছিলেন এভ্রিল। যদিও তিনি তার শাস্তি পেয়েছেন। মিথ্যা বলার অপরাধে তিনি তার মুকুট হারিয়েছেন। এই ছবি বিষয়েও যে তিনি মিথ্যা বলছেন না তার প্রমাণ কি? সে কথাই বলছেন অনেকেই।

 

মুসা বাপ্পি কর্তৃক আপ করা ভিডিওটি ফেসবুক থেকে দেখুন:

Check Also

ময়মনসিংহে কবর থেকে বেরিয়ে আসলো এই মৃত যুবক , এরপর কি ঘটলো (দেখুন ভিডিওতে)

ময়মনসিংহে কবর থেকে বেরিয়ে আসলো এই মৃত যুবক ! আতঙ্কে এলাকাবাসী , এরপর কি ঘটলো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *