Wednesday , March 28 2018
Home / আন্তর্জাতিক / শুধুমাত্র মাতৃদুগ্ধ বিক্রি করে এই মহিলা রোজগার করছেন লক্ষ লক্ষ টাকা

শুধুমাত্র মাতৃদুগ্ধ বিক্রি করে এই মহিলা রোজগার করছেন লক্ষ লক্ষ টাকা

নবজাতকের পক্ষে সবচেয়ে পুষ্টিকর খাবার কী? উত্তরটা সকলেরই জানা মাতৃদুগ্ধ। বস্তুত, একটি নির্দিষ্ট বয়স পর্যন্ত মাতৃদুগ্ধই খায় শিশু। কিন্তু, অনেক সময়ে শিশু প্রয়োজনের তুলনায় শরীরে অতিরিক্ত দুধ তৈরি হওয়ার ফলে সমস্যা পড়েন মহিলারা। আবার উলটোটাও হয়। অর্থাৎ সন্তান জন্মের পর শারীরিক কারণে নারীদেহে পর্যাপ্ত দুধ তৈরি হয় না। সেক্ষেত্রে অতিরিক্ত স্তনদুগ্ধ দান করে অন্য মায়েদের সাহায্য করেন অনেকেই। কিন্তু, অন্য মায়েদের দান করাই শুধু নয়, নিজের স্তনদুগ্ধ বিক্রি করে রোজগার করছেন সাইপ্রাসের এক যুবতী। গাঁটের কড়ি খরচ করে মাতৃদুগ্ধ কিনছেন বডিবিল্ডাররা।

রাফেলা লামপ্রাউ নামে ওই যুবতীর বয়স ২৪। সাত মাস আগে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন তিনি। মা হওয়ার অল্প কিছুদিনের মধ্যে তিনি বুঝতে পারেন, সন্তানের প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি দুধ তৈরি হচ্ছে শরীরে। প্রথমে অতিরিক্ত মাতৃদুগ্ধ কৃত্রিম উপায়ে সংরক্ষণের চেষ্টা করেছিলেন রাফেলা। কিন্তু, তাতেও কুলিয়ে উঠতে পারছিলেন না। প্রচুর পরিমাণে দুধ শরীরেই থেকে যাচ্ছিল। এরপর আর পাঁচজন মহিলা যা করে থাকেন, তাই সাইপ্রাসের ওই তরুণীও তাই করছিলেন। সন্তান হওয়ার পরও যেসব মহিলা দেহে পর্যাপ্ত দুধ তৈরি হয় না, তাঁদের যেচেই দুধ দান করতে শুরু করেন তিনি। এভাবেই দিন কাটছিল। বিষয়টি জানতে পেরে হঠাৎ রাফেলার কাছে হাজির হন স্থানীয় কয়েকজন বডি বিল্ডাররা। তাঁরা জানান, মাতৃদুগ্ধ দেহের পেশীর ঘনত্ব বাড়াতে সাহায্য করে। তাই স্টেরয়েডের বদলে স্তনদুগ্ধ খেতে চান তাঁরা। রাফেলাকে অতিরিক্ত দুধ বিক্রি করার প্রস্তাব দেন বডি বিল্ডাররা। প্রথম সেই প্রস্তাবে কিছুটা দোটানায় পড়েছিলেন ওই যুবতী। কিন্তু, ক্রমে আগ্রহীদের সংখ্যা বাড়তে থাকে। রাফেলা লামপ্রাউ বুঝতে পারেন, বডি বিল্ডার্সদের মধ্যে মাতৃদুগ্ধের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। আর সন্তানের চাহিদা মেটানোর পরও তাঁর শরীরে দুধ অবশিষ্ট রয়ে যাচ্ছে। তাই সেই দুধ যদি বিক্রি করা যায়, তাহলে সন্তানের তো কোনও ক্ষতি হবেই না, বরং রোজগারের একটা নতুন রাস্তা খুলে যাবে।

জানা গিয়েছে, সন্তান হওয়ার পর থেকে রাফেলার শরীরে প্রতিদিন ২ লিটার করে দুধ তৈরি হয়। সন্তান খাওয়ানোর পর, অতিরিক্ত দুধ প্রতি আউন্স ১ ডলার হিসেবে পুরুষ বডি বিল্ডারদের বিক্রি করে দেন রাফেলা। রাফেলার দাবি, এখন দৈনিক ৫০০ লিটার মাতৃদুগ্ধ বিক্রি করেছেন তিনি। তিনি আয় করেছেন সাড়ে চার হাজার মার্কিন ডলার! মাতৃদুগ্ধ বিক্রি করার জন্য রীতিমতো একটি ওয়েবসাইট খুলে ফেলেছেন রাফেলা লামপ্রাউ। ওই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে যে কেউ তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করে দুধ কিনতে পারেন। যদিও মাতৃদুগ্ধ বডি বিল্ডাররা কীভাবে ব্যবহার করেন, সে সম্পর্কে অবশ্য কোনও ধারণা নেই ওই যুবতীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *