Wednesday , March 28 2018
Home / অন্যান্য / বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্বে সাকিব-মাশরাফি

বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্বে সাকিব-মাশরাফি

আগামী ১৫ই জানুয়ারি থেকে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এরপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে টাইগাররা। কিন্তু এই সিরিজ গুলোতে কোচ বিহীন অবস্থায় খেলতে হবে টাইগারদের। কারণ কোচ হাতুরেসিংহে চলে যাওয়ার পর সে জায়গায় এখনো কেউ আসেনি। একজন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক ও অপরজন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। বলা নেই কওয়া নেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন দুজনের কাঁধে দিয়ে দিলেন আরও এক বিশাল দায়িত্ব। আসন্ন ত্রিদেশীয় ও শ্রীলঙ্কা সিরিজে বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্বে থাকবেন সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মুর্তজা।

চান্দিকা হাতুরুসিংহে বাংলাদেশের দায়িত্ব ছাড়ার পর আর নতুন কোচ নিয়োগ দেয়নি বিসিবি। বাংলাদেশের সাবেক কোচ রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স সাক্ষাৎকার দিলেও কাউকেই নিশ্চিত করে কিছু জানানো হয়নি। স্থায়ী কোচ নিয়োগ দেওয়ার আগে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে টিম ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে। তবুও দলের সিনিয়র হিসেবে কোচের দাতিত্বটা মাশরাফি-সাকিবকেই দিতে চাইছেন নাজমুল হাসান।

সোমবার ধানমন্ডিতে তার নিজস্ব কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন বোর্ড সভাপতি। সেখানেই বলেন, ‘এই সিরিজে বাইরে থেকে কোনো কোচ আসছে না। এই সিরিজটাই শুধু। পরের সিরিজের আগে অবশ্যই কোচ নিয়ে আসতে পারলে নিয়ে আসব। তবে আমাকে যদি জিজ্ঞেস করেন তবে আমি বলব, এবার কোচ হচ্ছেন সাকিব ও মাশরাফি। সিনিয়র ক্রিকেটারদের ওপর ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। ওরা বেশ আত্মবিশ্বাসী যে এই সিরিজ নিজেরাই সামলাতে পারবে। এবার তাই ক্রিকেটাররাই কোচ। এছাড়া সাপোর্ট স্টাফ যারা আছেতারা তো থাকবেই।

নতুন বছরের আরও কিছু সিদ্ধান্ত জানিয়ে সভাপতি বলেন, ‘বোর্ড থেকে যে প্রতিনিধি থাকেসাপোর্ট সার্ভিস যা থাকেসেরকমই থাকছে। পাশাপাশি আমাদের খালেদ মাহমুদ সুজনযে সবসময় ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতবোর্ড ও ক্রিকেটারদের মধ্যে একটা ইন্টারলিংক হিসেবে কাজ করতসেটায় সে থাকছে। যেহেতু সে থাকছেতাকে একটা পদবি দিয়ে রাখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *