Wednesday , March 28 2018
Home / অন্যান্য / ‘পাপন সাহেব খুব চালাক, উদ্দেশ্য ছাড়া কিছু করেন না’

‘পাপন সাহেব খুব চালাক, উদ্দেশ্য ছাড়া কিছু করেন না’

বাংলাদেশ প্রসঙ্গে আলাপ করতে গিয়ে এবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে নিয়ে পড়লেন চান্দিকা হাতুরুসিংহে। শ্রীলঙ্কার এই নতুন প্রধান কোচের মতে, পাপন খুব চালাক এবং বুদ্ধিমান। সবকিছুর পিছনেই তার উদ্দেশ্য থাকবেই।

বাংলাদেশের দায়িত্ব ছাড়ার পর এবং শ্রীলঙ্কার দায়িত্ব নিয়ে প্রথম কোন পূর্ণাঙ্গ সাক্ষাতকারে বসলেন মাশরাফি বিন মুর্তজাদের সদ্য সাবেক কোচ। সেখানেই বাংলাদেশের দায়িত্ব ছাড়া নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তাকে। সর্বশেষ বাংলাদেশে কারণ দর্শাতে এসে বোর্ড কর্তাদের কাছে বলেছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় সাকিব আল হাসানের বিশ্রাম নেওয়া তার পছন্দ হয়নি। পাপন পরবর্তীতে গণমাধ্যমকে জানান, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্টে সাকিব আল হাসানের বিশ্রাম নেওয়ার কারণেই দায়িত্ব ছেড়েছেন হাতুরুসিংহে। মূলত, দলের জ্যৈষ্ঠ ক্রিকেটারদের উপর বিরক্ত এই লঙ্কান। যদিও পাপনদের সঙ্গে আরও অনেক কথাই বলেছিলেন হাতুরুসিংহে। কিন্তু গণমাধ্যমের কাছে সাকিব ইস্যুটি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ করেন বিসিবি সভাপতি।

পাপন যা বলেছেন তা সত্যি নয় বলেই দাবি হাতুরুসিংহের। সেটা বলতে গিয়ে এক হাত নিলেন পাপনকে। সাবেক এই শ্রীলঙ্কান ওপেনার বলেন, ‘এসব কথা একেবারেই মিথ্যে। নাজমুল হাসান (পাপন) সাবেক খুবই চালাক ও বুদ্ধিমান মানুষ। এগুলো ভালই ব্যবহার করতে পারে। উদ্যেশ্য ছাড়া কিছু করেন না। আমাকে নিয়ে তার বলা এসব কথা হয়তো সাকিবকে উত্তেজিত করেছে। আমি দেখেছি সাকিবকে অধিনায়ক করা হয়েছে। সে (পাপন) এগুলোর মধ্যে একটা যোগসূত্র তৈরি করেছে। খুব চালাকি করেছে, নিয়ন্ত্রণও করেছে।’

একই সাক্ষাৎকারে হাতুরুসিংহে জানিয়েছেন বাংলাদেশ থেকে গতার পদত্যাগের কারণ। তার দাবি, পরিবারকে সময় দিতেই এই উদ্যোগ তার। আজীবন পরিবারের সঙ্গে থাকবেন না, সেটাও পরিকল্পনা করেছেন।

বলেছেন, ‘প্রথমত, আমি মনে করি বাংলাদেশকে আমি আমার সামর্থ্যের সর্বোচ্চ অবস্থানে বাংলাদেশকে নিয়ে গিয়েছি। আরেকটি ব্যাপার হল, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট আমাকে চতুর্থবারের মতন হেড কোচ হওয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে। আমি যে অবস্থায় আছি, আমার পরিবার আমার চেয়ে অনেক দূরে অবস্থান করছে। আমার স্বপ্ন ছিল শ্রীলঙ্কার কোচ হওয়া, আমি সেটা হয়েছি। সঠিক সময়েই হয়েছি। আমি যদি আরও তিন বছর বাংলাদেশের কোচ হিসেবে কাজ করতাম , এরপর যদি শ্রীলঙ্কার কোচ হিসেবে আরও চার বছর কাজ করতাম তাহলে কখনই পারতাম না। তাই চ্যালেঞ্জটা আমি নিয়েছি। বাংলাদেশের চাকরি ছাড়তে এসবই আমাকে ভাবতে হয়েছে।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *